বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ১১:৪২ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় একশ’ জন হতদরিদ্র মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছে হুছাইনীয়া দরিদ্র কল্যাণ ফাউন্ডেশন কি‌শোরগঞ্জ এর হোসেনপুরে ষো‌লোআনা ফাউ‌ন্ডেশ‌নের মাস্ক ও গ্লাভস বিতরণ কি‌শোরগঞ্জ এর পাকু‌ন্দিয়ায় ষো‌লোআনা ফাউ‌ন্ডেশ‌নের মাস্ক ও গ্লাভস বিতরণ ‌কি‌শোরগ‌ঞ্জে করোনা ভাইরাস রোধে জীবাণু নাশক ঔষধ স্প্রে ক‌রে ছাত্রদল বাড়বে ছুটি, নববর্ষের অনুষ্ঠান বন্ধ পলাশবাড়ীতে পৌরসভার উদ্যোগে জোড়ালোভাবে জিবানুনাশক স্প্রে কার্যক্রম মুরাদনগর সরমাকান্দায় পূর্বশত্রুতার জেরে নির্মাণাধীন দালান ভাঙচুর থানায় মামলা করোনায় মৃত্যু ২১ হাজার ছাড়িয়েছে ক‌রোনা ভাইরাস স‌চেতনতায় মিরপু‌রে মাস্ক বিতরণ ক‌রে‌ছে ষো‌লোআনা ফাউ‌ন্ডেশন করোনা: ৯ কোটি টাকা দান করলেন মেসি

চোখে ট্যাটু করে অন্ধ হলেন মডেল

রিপোটারের নাম
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৩ মার্চ, ২০২০
  • ২০ বার শেয়ার

শরীরে ট্যাটু এখন ফ্যাশনে পরিণত হয়েছে, ছেলে-মেয়ে উভয় ক্ষেত্রেই। কিন্তু তাই বলে চোখেও ট্যাটু! তাও আবার চোখের সাদা অংশে। এমন কাজ করতে গিয়ে ‘সম্পূর্ণ অন্ধ’ হওয়ার পথে আলেক্সান্দ্রা স্যাডোওস্কা (২৫) নামের এক মডেল। তিনি পোল্যান্ডের রোকলার এলাকায় বাস করেন। এমন খবর প্রকাশ করেছে ডেইলি মেইল।

আলেক্সান্দ্রা ঠিক করেন পোপেকের মতো লুক পেতে তিনিও চোখের মধ্যে ট্যাটু করাবেন। তাই চোখের সাদা অংশটি কালো রঙ দিয়ে ট্যাটু করাতে স্থানীয় এক ট্যাটু শিল্পীর কাছে যান তিনি। সাধারণত আইবল ট্যাটুকে স্ক্লেরাল ট্যাটুও বলা হয়ে থাকে। এটি দেহ পরিবর্তনের একটি চূড়ান্ত রূপ যেখানে স্থায়ীভাবে রঙিন করার জন্য কোনো ব্যক্তির চোখের সাদা অংশে কালি দিয়ে ট্যাটু করা হয়। এর দীর্ঘমেয়াদী প্রভাব এখনো জানা যায়নি।

কিন্তু চোখে ট্যাটু করানোর পর থেকেই চোখে ব্যথার অভিযোগ করেন আলেক্সান্দ্রা। পিয়োটার এ নামের স্থানীয় এক ট্যাটু শিল্পী তার চোখের ভিতর ট্যাটু করে দেন। ওই ট্যাটু শিল্পী তাকে জানিয়েছিলেন, এই যন্ত্রণা স্বাভাবিক এবং পেইন কিলার খেলেই নাকি এই ব্যথা কম যাবে।

তদন্তে দেখা গেছে, চোখের মণিতে ট্যাটু আঁকতে গিয়ে ওই শিল্পী মারাত্মক ত্রুটি করেছিলেন। তিনি চোখের ট্যাটুর জন্য বডি ইংক ব্যবহার করেছিলেন যা চোখের সংস্পর্শে আসাই উচিত নয়।

তবে আলেক্সান্দ্রা স্যাডোওস্কাকে অনিচ্ছাকৃতভাবে মারাত্মকভাবে অক্ষম করার অপরাধে ওই ট্যাটু শিল্পীর তিন বছরের কারাদণ্ড হয়েছে।

আলেক্সান্দ্রা তার দৃষ্টিশক্তি ফিরে পেতে তিনটি পদ্ধতি ব্যবহার করেছেন বলে জানা গেছে। তবে চিকিত্সকরা জানান, ট্যাটুর রঞ্জকটি তার টিস্যুতে পৌঁছে গিয়েছে ফলে দৃষ্টি ফিরে পাওয়ার আর কোনো আশা নেই।

আলেক্সান্দ্রা বলেন, ‘দুর্ভাগ্যক্রমে, আপাতত চিকিত্সকরা আমার দৃষ্টির উন্নতির জন্য খুব একটা আশাবাদী নন। ক্ষতিটা খুব গভীর এবং ব্যাপক। আমি আশঙ্কা করছি আমি সম্পূর্ণ অন্ধ হয়ে যাবো।’ পিয়োটার এ’র ​​বিরুদ্ধে আদালতে শীঘ্রই মামলা শুরু হবে বলে আশা করা হচ্ছে।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই বিভাগের আরও খবর
এর ৩য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও ৪র্থ বর্ষে পদার্পণ আর মাত্র বাকি
07দিন 00ঘন্টা 17মিনিট 18সেকেন্ড

বাংলাদেশে কোরোনা

মোট

৫৪

জন
নতুন

জন
মৃত

জন
সুস্থ

২৬

জন

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৫৪
সুস্থ
২৬
মৃত্যু

বিশ্বে

আক্রান্ত
৯১২,০৯৭
সুস্থ
১৯০,৯৩৩
মৃত্যু
৪৫,৫৩৯

এই ওয়েব সাইটের যে কোন তথ্য, ছবি, অডিও কিংবা ভিডিও অন্য ওয়েব সাইটে প্রকাশ আইনত দন্ডনিয় অপরাধ।

© All rights reserved © desherbarta24.com 2017-2020

ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jpthemes2281