বুধবার, ০১ এপ্রিল ২০২০, ১০:৫০ অপরাহ্ন
শিরোনাম :
কিশোরগঞ্জের পাকুন্দিয়ায় একশ’ জন হতদরিদ্র মানুষের মাঝে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করেছে হুছাইনীয়া দরিদ্র কল্যাণ ফাউন্ডেশন কি‌শোরগঞ্জ এর হোসেনপুরে ষো‌লোআনা ফাউ‌ন্ডেশ‌নের মাস্ক ও গ্লাভস বিতরণ কি‌শোরগঞ্জ এর পাকু‌ন্দিয়ায় ষো‌লোআনা ফাউ‌ন্ডেশ‌নের মাস্ক ও গ্লাভস বিতরণ ‌কি‌শোরগ‌ঞ্জে করোনা ভাইরাস রোধে জীবাণু নাশক ঔষধ স্প্রে ক‌রে ছাত্রদল বাড়বে ছুটি, নববর্ষের অনুষ্ঠান বন্ধ পলাশবাড়ীতে পৌরসভার উদ্যোগে জোড়ালোভাবে জিবানুনাশক স্প্রে কার্যক্রম মুরাদনগর সরমাকান্দায় পূর্বশত্রুতার জেরে নির্মাণাধীন দালান ভাঙচুর থানায় মামলা করোনায় মৃত্যু ২১ হাজার ছাড়িয়েছে ক‌রোনা ভাইরাস স‌চেতনতায় মিরপু‌রে মাস্ক বিতরণ ক‌রে‌ছে ষো‌লোআনা ফাউ‌ন্ডেশন করোনা: ৯ কোটি টাকা দান করলেন মেসি

নষ্ট রাজনীতির বদল ছাড়া আবরারদের রক্ষা করা যাবে না

রিপোটারের নাম
  • প্রকাশের সময় : মঙ্গলবার, ৮ অক্টোবর, ২০১৯
  • ৫৩ বার শেয়ার

মনীষা চক্রবর্তী :


১. 
আমি তখন বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজের (শেবাচিমে) দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। আমার কাছের এক বান্ধবী আর বন্ধুর মধ্যে একটু ভাল লাগার একটা ব্যাপার হল। ছাত্রলীগের এক পাতিনেতার পছন্দ হল না ব্যাপারটা। মেয়েটিকে তার পছন্দ ছিল। সুতরাং, ‘অ্যাকশন’ তো নিতেই হবে! ১৫/২০ জন মিলে আমাদের সেই বন্ধুটিকে হকিস্টিক দিয়ে রুমের মধ্যে আটকে বেধড়ক মারে। বন্ধুটি যখন হাসপাতালে, তখন সেই বান্ধবীর সাথে আমরা দেখতে গেলাম বন্ধুকে। দেখলাম বেশিরভাগ মেয়ে ভয়ে-আতংকে যেতেই চায় না। তখন রাজনীতি করি না। আমরা যতটুকু পারি বন্ধুর পাশে দাঁড়িয়েছিলাম। প্রচন্ড বিক্ষুব্ধ ছিলাম কিন্তু প্রতিবাদ করতে পারিনি।

২.
প্রতিবাদ হয়েছিল ২০১২ তে। প্রথম বর্ষের ছাত্র আবু নোমান নির্মম র‍্যাগিং এর বিভৎসতার শিকার হল, শিকার হল চাঁদাবাজির। আমরা ছাত্র ফ্রন্ট এর উদ্যোগে ১৫-১৬ জন মিলে মানববন্ধন করার সিদ্ধান্ত নিলাম। অবাক করা ব্যাপার হল, আমরা সবাই ছিলাম মেয়ে। নোমানের পরিণতি হতে পারে ভেবে কোন ছেলে আমাদের সাথে আসেনি। আগের দিন রাত থেকে হুমকির জোয়ারে আক্রান্ত হলাম আমরা। ক্ষমতাসীন ছাত্র সংগঠন এর বিরুদ্ধে ছাত্র ফ্রন্ট প্রোগ্রাম করবে এটা ছিল ছাত্রলীগের কাছে অবিশ্বাস্য। আমরা ঠিকই গেলাম প্রোগ্রামে। সেই র‍্যাগিং এর নেতারা নানান হম্বিতম্বির পর শেষে হামলা করল মানববন্ধনে। কিন্তু প্রতিবাদের স্ফুলিঙ্গ তৈরি হল ক্যাম্পাসে- বরিশালে- সারাদেশে।

৩.
২০১৩ তে ছাত্রলীগ ঢুকেছিল ছাত্রীহলে। আরেক নেতার বান্ধবীর জন্য রুম ছাড়ার হুমকি দিতে। ছাত্রী হলে প্রতিবাদের আগুন জ্বলে উঠেছিল। যথারীতি বলা হয়েছিল, ছাত্র ফ্রন্ট আর শিবির একসাথে ষড়যন্ত্র করে এই আন্দোলন করছে! এই গাজাখুরি গল্প অবশ্য ধোপে টেকেনি। সব ইয়ারের মেয়েরা মিলে ক্লাস বর্জন, সারারাত হলের বাইরে অবস্থান নেয়া, স্লোগানে-মিছিলে ছাত্রী হলের চেহারা পালটে দিয়েছিল। আপাতদৃষ্টিতে নিরীহ ছাত্রীরা অন্যায়ের বিরুদ্ধে কিরকম শক্ত হয়ে দাঁড়াতে পারে তার উদাহরণ তৈরি হয়েছিল শেবাচিমে। সেই প্রতিরোধ এর ইতিহাস এখনো শেবাচিম ছাত্রী হলের নিরাপত্তা দেয় বলেই বিশ্বাস করি।

সেইসব নিপীড়নের কর্মকাণ্ড যারা ঘটিয়েছেন আজকে তারা বিভিন্ন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা হিসেবে কর্মরত। একটা নষ্ট রাজনীতি একজন মানুষকে কত পশুর স্তরে নিয়ে যেতে পারে একসময় তারা সেই উদাহরণ তৈরি করেছিলেন। আর ঠিক তার বিপরীতে সমাজপ্রগতির রাজনীতি, ন্যায্যতার শক্তি সেদিনের মানুষগুলিকে ভয়-ভীতির উর্ধ্বে উঠিয়ে অন্যায়ের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ প্রতিরোধের উদাহরণ তৈরি করেছিল।

বুয়েটের শিক্ষার্থী আবরার মরে গেছে, কিন্তু যারা এখনো মারা যাননি তারা কি আবরারদের মৃত্যুর নীরব দর্শক হবেন? নাকি অসংখ্য আবরারের জীবন রক্ষার ঐক্যবদ্ধ শক্তি তৈরি করবেন? মনে রাখবেন, এই নষ্ট রাজনীতির বদল ছাড়া আবরারদের রক্ষা করা যাবে না।

আবরার হত্যার বিচার চাই।

লেখক: চিকিৎসক ও রাজনৈতিক সংগঠক।

এই সংবাদটি শেয়ার করুনঃ

এই বিভাগের আরও খবর
এর ৩য় প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী ও ৪র্থ বর্ষে পদার্পণ আর মাত্র বাকি
07দিন 01ঘন্টা 09মিনিট 48সেকেন্ড

বাংলাদেশে কোরোনা

মোট

৫৪

জন
নতুন

জন
মৃত

জন
সুস্থ

২৬

জন

বিশ্বজুড়ে করোনাভাইরাস

বাংলাদেশে

আক্রান্ত
৫৪
সুস্থ
২৬
মৃত্যু

বিশ্বে

আক্রান্ত
৯০৩,৮১৯
সুস্থ
১৯০,৬৮৪
মৃত্যু
৪৫,৩৩৪

এই ওয়েব সাইটের যে কোন তথ্য, ছবি, অডিও কিংবা ভিডিও অন্য ওয়েব সাইটে প্রকাশ আইনত দন্ডনিয় অপরাধ।

© All rights reserved © desherbarta24.com 2017-2020

ডিজাইন ও কারিগরি সহযোগিতায়: Jp Host BD
jpthemes2281