12:41 PM, 21 May, 2024

পোল্যান্ড ও বুলগেরিয়ায় গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দিচ্ছে রাশিয়া

পোল্যান্ড এবং বুলগেরিয়াকে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করার কথা জানিয়েছে ক্রেমলিন। রাশিয়ান জ্বালানি সংস্থা গ্যাজপ্রম বুধবার থেকে দুটি দেশে গ্যাস পাঠানো বন্ধ করবে বলে জানিয়ে দিয়েছে।

পোল্যান্ডের গ্যাস কোম্পানি পিজিএনআইজি বলেছে, তাদের বলে দেওয়া হয়েছে বুধবার স্থানীয় সময় সকাল ৮ টা থেকে আর গ্যাস দেওয়া হবে না। বুলগেরিয়ার জ্বালানি মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকেও বলা হয়েছে, বুধবার থেকে তাদের দেশে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করে দেওয়া হবে।

রাশিয়ার পক্ষ থেকে সম্প্রতি ঘোষণা দেওয়া হয়, অবন্ধুসুলভ দেশগুলোকে জ্বালানি নিতে হলে অবশ্যই রাশিয়ান মুদ্রা রুবলে অর্থ পরিশোধ করতে হবে। তা না হলে তাদের গ্যাস সরবরাহ করা হবে না। পোল্যান্ড ও বুলগেরিয়া ওই শর্ত মানতে অসম্মতি জানায়। এরপর পোল্যান্ড ও বুলগেরিয়াকে গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করার বিষয়টি জানিয়ে দেওয়া হয়েছে।পোল্যান্ডের গ্যাস কোম্পানি পিজিএনআইজি অধিকাংশ গ্যাস আমদানি করে থাকে গ্যাজপ্রম থেকে। চলতি বছরের প্রথম তিন মাসেও প্রতিষ্ঠানটির মোট গ্যাসের ৫৩ শতাংশ সরবরাহ করেছে রুশ কোম্পানিগুলো। তারা বলছে, হঠাৎ গ্যাস সরবরাহ বন্ধ করাটা চুক্তির লঙ্ঘন। তাদের পক্ষ থেকে গ্যাসের সরবরাহ স্বাভাবিক রাখতে পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

বুলগেরিয়ার গ্যাসের ৯০ শতাংশই আসে গ্যাজপ্রম থেকে। তারা বলছে, গ্যাসের বিকল্প উৎসের জন্য তারা চেষ্টা করছে। তবে এ মুহুর্তে গ্যাস ব্যবহারের জন্য কোনো বিধিনিষেধ দেওয়া হচ্ছে না।

বুলগেরিয়ার জ্বালানি মন্ত্রণালয় বলেছে, গ্যাজপ্রমের সঙ্গে বর্তমান চুক্তির অধীনে বাধ্যবাধকতাগুলো পূর্ণ করা ও সব প্রয়োজনীয় অর্থ পরিশোধ করা হয়েছে। তবে রাশিয়ার কাছ থেকে নতুন যে পেমেন্ট সিস্টেমের প্রস্তাব করা হয়েছে তা বর্তমান চুক্তির লঙ্ঘন।

এদিকে গ্যাস সরবরাহ বন্ধের হুমকির মুখে পোল্যান্ডের পরিবেশ মন্ত্রী অ্যানা মস্কোয়া বলেছেন, দেশটির জ্বালানি সরবরাহের বিষয়টি নিরাপদ করা হয়েছে। অ্যানা বলেন, এ মুহুর্তে গ্যাসের রিজার্ভ থেকে টানা প্রয়োজন হবে না বা গ্রাহকের গ্যাস সরবারহ বন্ধ করা হবে না।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *